Loading ...
Sorry, an error occurred while loading the content.

ফ্রান্সে ইস ;লাম গ্রহণেø 0; হার বাড়ছে &# 2482;ণীয়ভাবে(Islam in France growing)

Expand Messages
  • Mohiuddin Anwar
    ফ্রান্সে ইসলাম গ্রহণের
    Message 1 of 1 , Feb 28 1:52 PM
    • 0 Attachment

      ফ্রান্সে ইসলাম গ্রহণের হার বাড়ছে লণীয়ভাবে

      মঈনুল আলম
      তারিখ: ১ মার্চ, ২০১৩
      ফ্রান্সে খ্রিষ্টানদের ইসলাম ধর্মে দীাগ্রহণের হার লণীয়ভাবে বেড়ে যাচ্ছে বলে সরকারি মহল স্বীকার করে এ সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করছে। গত ২৫ বছরে ফ্রান্সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের হার দ্বিগুণ হয়ে গেছে।
      ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা বার্নার্ড গডার্ডের মতে ফ্রান্সে বর্তমানে ৬০ লাখ মুসলিম অধিবাসীর মধ্যে ১০ লাখ হচ্ছে খ্রিষ্টান ধর্ম ত্যাগ করে ইসলামে দীতি হওয়া নব্যমুসলমান। ১৯৮৬ সালে ফ্রান্সে নব্যমুসলমানের সংখ্যা ছিল মাত্র ৫০ হাজার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ধর্মীয় বিষয়াদি দফতরের কর্মকর্তা বার্নার্ড গডার্ড বলেন, ‘ইসলামে ধর্মান্তরিত হওয়া একটি উৎসাহজনক এবং চিত্তাকর্ষক ব্যাপারে পরিণত হয়েছে, বিশেষ করে ২০০০ সালের পর থেকে।’
      ফ্রান্সের দণি উপকূলে বৃহত্তম বন্দরনগরী মার্সেই-এর বৃহত্তম মসজিদের ইমাম আবদুর রহমান ঘাউল বলেন, ‘গত তিন বছরে ফরাসিদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের হার অবিশ্বাস্যভাবে বাড়ছে।’ ২০১২ সালে ইমাম ঘাউল ১৩০ জন ফরাসির ইসলাম ধর্মে দীতি হওয়ার সনদে স্বার করেন। মুসলিম সমিতিগুলো মনে করে যে, ফ্রান্সে নব্যমুসলমানের সংখ্যা দুই লাখে পৌঁছেছে। তবে ফ্রান্স নিজেকে ধর্মনিরপে রাষ্ট্র বলে দাবি করে এবং ধর্ম ও জাতিতাত্ত্বিক ভিত্তিতে কোনো পরিসংখ্যান সরকারিভাবে রাখা হয় না।
      যুক্তরাষ্ট্রের সর্বাধিক প্রভাবশালী সংবাদপত্র নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর আন্তর্জাতিক সাপ্তাহিক সংস্করণের ১০ ফেব্র“য়ারি সংখ্যায় ‘ফ্রান্সে ইসলামের সজোর টান’ (ইন ফ্রান্স, দ্য টাগ অব ইসলাম) শিরোনামে এ সম্পর্কে এক তথ্যবহুল প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।
      ফ্রান্স ২০১০ সালে প্রকাশ্য এলাকায় মুসলিম নারীদের মুখ আবৃত করে পর্দা করা নিষিদ্ধ করেছে। ফ্রান্সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের ক্রমবর্ধমান হারে ফরাসি সরকারের উদ্বেগের কারণেই এই নিষেধাজ্ঞা এসেছে বলে ধারণা করা হয়। অনেক মুসলমান অভিযোগ করেন যে, দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় মুসলমানেরা অনেকভাবেই বৈষম্য ও অবজ্ঞার শিকার হয়।
      বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার জন্য ধর্মান্তরিত হওয়া ফ্রান্সে ঐতিহ্যগতভাবে প্রচলিত আছে। তবে বর্তমানে ল করা যাচ্ছে, যেসব এলাকায় বসবাসকারীদের মধ্যে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের প্রাধান্য রয়েছে সেসব এলাকায় উন্নততর সামাজিক পরিবেশে নিজেদের সংযোজিত করার অভিলাষে ইসলাম ধর্মে দীাগ্রহণের হার বেড়ে যাচ্ছে।
      ফ্রান্সে ইসলাম সম্পর্কে বিশেষজ্ঞ গিলেজ কেপেল, যিনি প্যারিস ও অন্যান্য বড় শহরের শহরতলি এলাকায় মুসলিম অধিবাসী প্রধান দরিদ্র এলাকাগুলোর ওপর গবেষণা করছেন। তিনি বলেন, দরিদ্র এলাকাগুলোতে এটা বিপরীত অভিযোজনে পরিণত হয়েছে (অর্থাৎ মুসলমানেরা ফরাসি সমাজে মিশে যাওয়ার পরিবর্তে ফরাসিরা মুসলিম সমাজে মিশে যাচ্ছে)।
      প্যারিসের কেন্দ্রস্থলে ২০০৮ সালে অত্যন্ত আধুনিক ও মনোরম স্থাপত্যের সুবৃহৎ যে সাহাবা মসজিদ নির্মিত হয়েছে তা সাধারণের মধ্যে ‘নবদীতি মুসলমানদের মসজিদ’ (দ্য মস্ক অব দ্য কনভার্টস) নামে পরিচিত হয়েছে। এই বৃহৎ মসজিদটিকে ফ্রান্সে ইসলামের ক্রমবর্ধমান উপস্থিতির প্রতীক বলে মনে করা হয়। প্রতি শুক্রবার এখানে জুমার বৃহৎ জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অসংখ্য শ্বেতাঙ্গ ফরাসি নব্যমুসলমানদের দেখা যায় যারা রোমান-ক্যাথলিক ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্মে দীাগ্রহণ করেছেন। তারা মুসলমানদের ঐতিহ্যবাহী দীর্ঘ জুব্বা পরে মাথায় টুপি দিয়ে নামাজ আদায় করেন।
      ফ্রান্সে সন্ত্রাস দমন দফতরের কর্মকর্তারা অনেক বছর থেকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করছেন যে, ইসলাম ধর্মে দীতি শ্বেতাঙ্গ ফরাসিরা ইউরোপে সন্ত্রাস সতর্কতার প্রতি একটি সম্ভাব্য হুমকি হতে পারে। কারণ তারা পাশ্চাত্য দেশের পাসপোর্ট বহন করে এবং চেহারায় তাদের ইউরোপিয়ানদের থেকে আলাদা করা যায় না। গত অক্টোবরে ফরাসি পুলিশ দেশব্যাপী সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালিয়ে ১২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। তাদের মধ্যে তিনজন ছিল ফরাসি শ্বেতাঙ্গ নব্যমুসলমান।
      প্যারিসের অন্যতম শহরতলি ড্রান্সির মসজিদের ইমাম হাসান চালগুমি বলেন, তিনি মনে করেন ফ্রান্সের সরকারিভাবে ধর্মনিরপেতা নীতি অনুসরণ করার কারণেই ফরাসিরা ইসলাম ধর্মের দিকে আকর্ষিত হচ্ছে। কারণ ধর্মনিরপেতা অনেকের মনে এক ধরনের আত্মিক শূন্যতা সৃষ্টি করে, সে শূন্যতা পূরণের জন্য অনেকেই ইসলাম ধর্মে দীাগ্রহণ করছে।
      লেখক : প্রবীণ সাংবাদিক, কানাডা প্রবাসী


       


      ____________________________________________________________
      Woman is 53 But Looks 25
      Mom reveals 1 simple wrinkle trick that has angered doctors...
      ConsumerLifestyleMag.com
    Your message has been successfully submitted and would be delivered to recipients shortly.